কাপড় খুলে প্রমাণ করতে হচ্ছে মুসলিম নাকি হিন্দু। নিরব নরেন্দ্র মোদি

ভারত প্রতিনিধি : এ যেন এক মুসলিম হত্যাযজ্ঞ, দুদিন আগে হিন্দু-মুসলিম এক হয়ে যে রাজ্যে বাস করতেন সে রাজ্যে প্রতিবেশী হিন্দুত্ববাদীদের হাতে নির্মম খুন হতে হল মুসলিম প্রতিবেশীদের। কয়েক দশক ধরে বসবাস করা ভারতীয় মুসলিম নাগরিকরা যেন এখন অভারতীয়। মোদি সরকারের শাসনামলে গুজরাট দাঙ্গার মতো ভয়াবহ আকার ধারণ করল শান্তিপূর্ণ এনআরসি বিরোধী বিক্ষোভে।

এনআরসি বিরোধী এই শান্তিপূর্ণ মিছিলে মুসলিম ছাড়াও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই মিলে ধর্মঘট পালন করছিল। কিন্তু এই শান্তিপূর্ণ ধর্মঘট স্থানীয় বিজেপি নেতার উস্কানিতে পরিণত হল এক ভয়াবহ মুসলিম হত্যা যজ্ঞে। গত পাঁচ দিনে এই হত্যাযজ্ঞে নিহত হয়েছে অন্তত ৫০ জন মুসলিম ভারতীয় নাগরিক। মুসলিমদের বাড়ি ঘরে অগ্নিসংযোগ ও মুসলিম নাগরিকদের পুড়িয়ে মারছে হিন্দুত্ববাদী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। মসজিদে আগুন মিনারে হনুমানের ছবি টাঙিয়ে দেওয়ার মতো জঘন্য অপরাধে লিপ্ত হয়েছে এই নরপশুরা।এই দাঙ্গার মাঝে মুসলিম নাগরিক নিশ্চিত হতে মুসলিম নাগরিকদের প্যান্ট খুলে চেক করা হচ্ছে সে মুসলিম নাগরিক কিনা। মুসলিম হলে সাথে সাথে পেট্রোল ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে হত্যা নিশ্চিত করছে এই সন্ত্রাসীরা।

এই হত্যাযজ্ঞের নির্দেশ দাতা হিসাবে মোদি সরকার কে দায়ী করছে ভারতীয় জনগণ।

Share On