এক হাজার বছর পিছিয়ে গেলো ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের শিক্ষার্থীরা।

নিজস্ব প্রতিবেদক : এক হাজার বছর পিছিয়ে গেলো ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের শিক্ষার্থীরা। আজ শনিবার বাংলা ১ম পত্রের পরীক্ষা দিতে গিয়ে তারা দেখলো এই অবস্থা। কারণ, প্রশ্নপত্রে এমসিকিউ অংশে লেখা রয়েছে ১০১৯ সালের সিলেবাস অনুযায়ী। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনার জন্য প্রশ্ন তৈরি ও মডারেশনে স্বজনপ্রীতি ও উদাসীনতাকে দায়ী করেছেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মোহাম্মদ মাজাহারুল হান্নান। তিনি বলেন, সৎ ও দক্ষ শিক্ষক বাছাই করতে ভুল করলে প্রশ্নপত্রে এমন ভুল থাকবেই। বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিটে (বেদু) যারা কাজ করেন তাদেরকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা দরকার। তাদেরকে কখনোই সংবাদ সম্মেলন বা সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিতে দেখা যায় না কেন? এ বিষয়ে সোশাল মিডিয়াতেও চলছে সমালোচনা। আব্দুল্লাহ আল বাকি লিখেছেন, ‘আদিম যুগের প্রশ্নপত্রের সন্ধান…২০১৯ সালে এসে ১০১৯ সালের প্রশ্নপত্র’।

Share On