যা চেয়েছে তাই পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

টি-টোয়েন্টির যুগের আগের কথা। টেস্ট সফরগুলো হতো দীর্ঘ। বেশি বেশি ট্যুর ম্যাচ, ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ খেলার সুযোগ থাকত। কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার যথেষ্ট সময় পেতেন ক্রিকেটাররা। যখন সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হতো, ততক্ষণে স্বাগতিক ও সফরকারী দলের মধ্যে পার্থক্যটা কমে আসত। যার কারণে ঘরের মাঠের সুবিধাটা এত প্রবল হতো না। টেস্ট ম্যাচের লড়াইটাও এখনকার মতো একপেশে হতো না।

করোনাভাইরাস এসে যেন সেই সেকেলে টেস্ট ক্রিকেটের স্বাদ কিছুটা হলেও ফিরিয়ে দিল। কোয়ারেন্টিন, ভ্রমণ জটিলতা সব মিলিয়ে হাতে প্রচুর সময় নিয়ে সফরে যেতে হচ্ছে টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোকে। এবার যেমন ওয়েস্ট ইন্ডিজ বাংলাদেশে এসেছে সেই ১০ জানুয়ারি। ১৪ জানুয়ারি থেকে ক্যারিবীয়দের টেস্ট দলটা অনুশীলন শুরু করেছে ৩ ফেব্রুয়ারির প্রথম টেস্টকে সামনে রেখে।

আজ রানের দেখা পেয়েছেন ডা সিলভা।
আজ রানের দেখা পেয়েছেন ডা সিলভা।

গত তিন দিন বিসিবি একাদশের বিপক্ষে চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে খেলছে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। যেখানে ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং—সবই ঝালিয়ে নিয়েছে ক্যারিবীয়রা। ৩ ফেব্রুয়ারির চট্টগ্রাম টেস্টের জন্য যেন আদর্শ প্রস্তুতিটাই হলো ক্যারিবীয়দের। প্রস্তুতি ম্যাচে ক্যারিবীয় অধিনায়ক ক্রেগ ব্রাফেট, জন ক্যাম্পবেল, এনক্রুমা বোনার, জশুয়া দা সিলভা, রেমন রেইফার রান পেয়েছেন।

বাংলাদেশে টেস্ট জিততে দরকার স্পিন শক্তি। প্রস্তুতি ম্যাচের দ্বিতীয় দিন ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট একাদশের দুই সম্ভাব্য ক্রিকেটার রাকিম কর্নওয়াল ও জোমেল ওয়ারিক্যান মিলে ৮ বাংলাদেশির উইকেট নেন। কর্নওয়াল একাই নেন ৫ উইকেট। তিন মূল পেসার কেমার রোচ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ও আলজারি জোসেফরা গা গরম করে নিয়েছেন দুই ইনিংসে নতুন বলে বল করে। প্রস্তুতি ম্যাচ থেকে যা অর্জনের যেন সবই পেল সফরকারীরা।

স্পিনারদের পারফরম্যান্স আশা বাড়াচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের।
স্পিনারদের পারফরম্যান্স আশা বাড়াচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিন ২৫৭ রানে অলআউট ক্যারিবীয়রা। অধিনায়ক ব্রাফেটের ব্যাট থেকে আসে ৮৫ রান। বিসিবি একাদশের লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন নেন ৫ উইকেট। দারুণ বোলিং করে পেসার খালেদ আহমেদ নেন ৩ উইকেট। প্রথম দিনের শেষ বেলায় ব্যাট করতে নেমে পরদিন মধ্যাহ্ন বিরতির পর ১৬০ রানে অলআউট বিসিবি একাদশ। ক্যারিবীয় স্পিনের বিপক্ষে কোনো জবাব ছিল না বিসিবি একাদশের ব্যাটসম্যানদের।

দ্বিতীয় দিন শেষ বেলায় ব্যাটিংয়ে নেমে আজ মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত ব্যাটিং করে ২৯১ রান করে ক্যারিবীয়রা। ক্যাম্পবেল (৬৮), বোনার (৮০), দা সিলভা (৪৬), রেইফার (৪৯*) রান করে টেস্টের প্রস্তুতি সারেন। পরে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে বোলিং প্রস্তুতিটাও সারে ক্যারিবীয়রা।

বিসিবি একাদশ দুই উইকেট হারিয়ে ৬৩ রান তুলতেই দিনের খেলা শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা আগে মাঠ ছাড়ে দুই দল। সাদমান ইসলাম ২৩ ও ইয়াসির আলী ৩৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

Share On
No Content Available