চুয়াডাঙ্গায় আরও একটি ভাঙা সংসার জোড়া লাগালেন সদর থানার ওসি আবু জিহাদ

The World BD

The World BD

মো: তারিকুৱ রহমান  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সহযোগিতায় একেরপর এক ভাঙা সংসার জোড়া লাগছে। পুলিশ সদস্যরা মনোমালিন্য হওয়া দম্পতিদের থানায় ডেকে এনে তাদের মধ্যকার ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে ভাঙা সংসারটি জোড়া লাগিয়ে দিচ্ছেন। এর আগেও চুয়াডাঙ্গার পুলিশ অফিসাররা বেশ কয়েকটি ভাঙা সংসার জোড়া লাগিয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ শুক্রবার (১৯ জুন) দর্শনা স্টেশন পাড়ার রেহানা বেগম (৪৫) ও হল্ট চাঁদপুরের আসাদুল হকের ভাঙা সংসার জোড়া লাগালেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান।
তিনি জানান, আজ থেকে ২৬ বছর আগে রেহানা বেগম ও আসাদুল হক একে অপরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এরপর থেকে তাদের দাম্পত্য জীবন সুখে দুখে ভালই চলছিল। তাদের দাম্পত্য জীবনে এক ছেলে এবং এক মেয়ের জন্ম হয়। কিন্তু আসাদুলের আর্থিক অনটন কখনো দূর হয় নাই। অভাব অনটনের সংসারে ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকত। এর মধ্য দিয়ে ছেলে ও মেয়ের অন্যত্র বিয়ে হয়ে যায়। এরপর রেহানা বেগম – আসাদুল ঘর ভাড়া করে চুয়াডাঙ্গা শহরে থাকত। দু’মাস আগে হঠাৎ একদিন আসাদুল রেহানাকে তালাক দিয়েছে বলে চলে যায়। রেহানার মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে। এরপর রেহানা পুলিশ সুপার মহোদয়ের অফিস, ডিবি অফিস, চুয়াডাঙ্গা সদর থানাসহ বিভিন্ন দপ্তরে তার স্বামীকে ফিরে পাওয়ার জন্য দৌড়াদৌড়ি শুরু করে। চুয়াডাঙ্গা জেলার মানবিক পুলিশ সুপার খ্যাত জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম স্যার আমাকে রেহানার বিষয়টি দেখার নির্দেশ দেন। আমি তাৎক্ষণিকভাবে রেহানাসহ তার পরিবারের সদস্যবৃন্দ এবং আসাদুল তার অন্যান্য আত্মীয়স্বজনকে থানায় ডাকি। আসাদুল কোনভাবেই রেহানার সাথে থাকতে রাজি নয় মর্মে সাফ আমাকে জানিয়ে দেন। বিয়ে ও তালাক একজন মানুষের আইনি অধিকার। পুলিশের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা হিসেবে এটা বোঝার পরও রেহানার একা হয়ে যাওয়ার নিদারুণ কষ্ট ও তার বুকফাটা কান্না আমাকে তাড়িত করে। আমি উভয় পরিবারের সদস্যবৃন্দসহ পরিশেষে আসাদুলকেও বোঝাতে সমর্থ হই। আসাদুল তার ভুল স্বীকার করে। এই বয়সে একজন নারীকে একা ফেলে তার এভাবে চলে যাওয়া ঠিক হয়নি মর্মে স্বীকার করে। তারা দীর্ঘ দুমাস পর পুনরায় একে অপরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। রেহানা তার স্বামীকে ফিরে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তারা স্বামী-স্ত্রী উভয়েই এবং আত্মীয়-স্বজনসহ পুলিশের এই ধরনের মীমাংসাকে সাধুবাদ জানায়। 

Discussion about this post

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১