গরীব কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিল উখিয়া উপজেলা তৃণমূল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ইতিবাচক কাজের যেনো শেষ নেই,এই দূর্যোগকালীন সময়ে নেই কোনো তাদের বিশ্রামও!একের পর এক ভালোকাজে নিজেদের প্রমাণ করে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই সংগঠন পুরো দেশজুড়ে।
এবার সালাহ উদ্দিনের নেতৃত্বে এমনই এক গর্বিত কাজের অংশীদার হলো উখিয়া উপজেলা তৃণমূল ছাত্রলীগ।

যার নেতৃত্বে ছিলো কক্সবাজার সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও উখিয়া উপজেলার ছাত্রলীগের সভাপতি পদ প্রার্থী সালাহ উদ্দিন।

অাজ মঙ্গলবার সকাল থেকে ধান কেটে বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার কাজে ব্যাস্ত ছিলো,উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের একঝাঁক ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।যা উখিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের ইতিহাসে বিরল দৃষ্টান্ত হিসেবে মনে করছেন সাধারণ সচেতন মানুষ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে,ছাত্রলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন জানান,হলদিয়া পালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা সাইমন গতকাল ফোন দিয়ে এক অসহায় কৃষকের কথা জানালে,অাজ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মানবিক কাজের অংশ হিসেবে কৃষক অাব্দুস সালামের ৪০শতক ধান কেটে উনার বাসা পর্যন্ত পৌঁছে দিলাম।যা স্রেফ দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে,অাপার পক্ষ থেকে ভালোবাসা পৌঁছানো চেষ্টা ছাড়া কিছুই না।যা বরারের মতো অব্যাহত থাকবেন বলেও জানান এই ছাত্রনেতা।

এই দিকে,উখিয়া উপজেলার অন্তর্গত হলদিয়া পালং ইউনিয়নের রুমখা ক্লাস পাড়ার অসহায় দরিদ্র কৃষক আব্দুস সালাম খুশি মুখে জানান,বিশ্বাসই করতে পারতেছি না অামার নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে থাকা পাকা ধান এখন অামার বাড়ির উঠুনে!উনাদের কি বলে খুশি করবো জানা নেই।সামন্য পানি ছাড়া কিছুই দিতে পারি নি!তবে মন ভরে দোয়া করে দিলাম এই ছেলে গুলোর জন্য।

অার এই মহৎকর্মে ছিলো,স্কুল-কলেজে পড়ুয়া ১৮-২০জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।যাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা জানান,ছাত্রলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন।

অারো উল্লেখ্য যে,গত ১৭ই মার্চ করোনা মোকাবেলার জন্য জনসচেতনতা মূলক লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ ছাড়াও বিভিন্ন সময় অসহায় মানুষকে চিকিৎসা সেবা ও ত্রাণ সহায়তা দিয়ে অালোচনায় এসেছে এই মানবিক ছাত্রলীগ নেতা।

Share your love