পিরোজপুরের স্বরুপকাঠীতে নারায়নগঞ্জ থেকে আসা ২৭ ব্যক্তিকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা নিয়ে সংঘর্ষ, পুলিশ সাংবাদিক সহ আহত ৫

বিকাশ হালদার : পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে নারায়নগঞ্জ থেকে আসা ২৭ ব্যাক্তিকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে রাখাকে কেন্দ্র করে এলাকাবাসীর
হামলায় বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ ৫ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৯এপ্রিল) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেল্টারের সামনে
এ ঘটনা ঘটে।জানাযায়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে নারায়নগঞ্জ শহর থেকে একটি ভাড়া
করা ট্রলারে করে স্বরূপকাঠীর বলদিয়া ইউনিয়নসহ পাশের কয়েকটি এলাকার ২৭ জন লোক আসেন। এ সংবাদ পেয়ে নেছারাবাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু নারায়নগঞ্জ থেকে আসা লোকদেরকে একটি বিদ্যালয়ে কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন আহমেদকে নির্দেশ
দেন। বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শাহিন আহমেদ ও স্বরূপকাঠী থানার উপ পরিদর্শক
আল মামুনসহ পুলিশ কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেল্টারে কোয়ারেন্টাইনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়ে ওই এলাকায় যায়। এই সিদ্ধান্ত মানতে বলদিয়া ইউনিয়নের কাটাপিটানিয়া গ্রামের লোকজন আপত্তি
করে। পরে ওই এলাকার ইউপি সদস্য সুখলাল ঢালী ও রনজিৎ বেপারীর নেতৃত্বে স্থানীয়রা তাদের উপর চড়াও হয়। এ সময় ওই এলাকার কয়েক‘শ মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে চেয়ারম্যান ও পুলিশের উপর হামলা চালায়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশও লাঠিচার্জ করে। ঘটনার সময় স্থানীয় সাংবাদিক গোলাম মোস্তফা ও এস আই তাজেল, এস আই আল মামুন, ইউপি সদস্য মো. সুমন ও চেয়ারম্যানের
ব্যক্তিগত গাড়ীর চালক মাসুম বিল্লাহ হামলার শিকার হন। আহতদের স্বরূপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে
নারায়নগঞ্জ থেকে আগতদের বলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ট্রলারে বসিয়ে রাখে।
হামলার সময় উপস্থিত এস আই তাজেল বলেন, কিছু মাতুব্বরের উসকানিতে তারা (এলাকাবাসী) আমাদের হামলা শুরু করেন। এ বিষয় ইউপি সদস্য সুখলালের সাথে কথা বলার জন্য তার ফোনে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।এ বিষয় স্বরূপকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখার চেষ্টা করছি। কিন্তু কিছু না বুঝেই কাটাপিটানিয়া গ্রামের মানুষকে উত্তেজিত করার কারনে এ হামলার ঘটনা
ঘটানো হয়েছে। স্বরূপকাঠী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু
বলেন, গত কয়দিনে ঢাকা ও নারায়নগঞ্জ থেকে ট্রলারে করে বহু লোক বাড়ীতে পালিয়ে
আসছে । এ কারনে লোকগুলোকে একটি নিরাপদ দুরত্বে কোয়ারেন্টাইনে রাখার চেষ্টা করছি। কিন্তু তারা এ সিদ্ধান্তকে না মেনে সরকারি কাজে বাঁধা দেয় এবং ইউপি চেয়ারম্যান, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ ৫ জন আহত করে ।

Share your love