মোদি বাংলাদেশে আসলে আবার যুদ্ধ শুরু হবে। হেফাজতে ইসলাম

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সরকারের মুজিব বর্ষ উদযাপন এর অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানোয় সমগ্র বাংলাদেশ জুড়ে চলছে বিক্ষোভ। নরেন্দ্র মোদিকে হিন্দুত্ববাদী জঙ্গী সংগঠনের শীর্ষ নেতা উপাধি দিয়েছে বাংলাদেশের হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতারা। দিল্লিতে মুসলিমদের উপর নরকীয় হত্যাকাণ্ডের পর বিশ্বব্যাপী নিন্দার মুখে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মোদি নিজের দেশেই বেশ সমালোচিত এসব কর্মকাণ্ডের।

মুজিববর্ষে নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ না জানানোর জন্য বাংলাদেশ সরকারের উচ্চ পর্যায়ে অনুরোধ করেও কোনো সাড়া পাননি হেফাজতের নেতারা। নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশ প্রবেশ করতে না দেওয়ার পক্ষে প্রায় সকল রাজনৈতিক সংগঠনের নেতারা সরকারের সাথে আলোচনা করেছেন।নরেন্দ্র মোদির প্রবেশ ঠেকাতে সারা দেশজুড়ে চলছে উত্তাল বিক্ষোভ। তবে বাংলাদেশ সরকার থেকে জানানো হয়েছে যে মোদিকে আমন্ত্রণ জানানো বাংলাদেশ সরকারের গর্ব। ভারত বাংলাদেশের প্রকৃতি বন্ধু। তাই ভারতকে বাদ দিয়ে মুজিব বর্ষ উদযাপন করার কথা ভাবাই যায় না।

নরেন্দ্র মোদির প্রবেশ ঠেকাতে বিমানবন্দর ঘেরাও করার হুমকি দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন ও হেফাজতে ইসলামের নেতারা। প্রয়োজনে আরেকটি শাপলা চত্বর ঘটনা পুনরাবৃত্তি হবে বলে জানিয়েছে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতারা।

Share On