১০ অনলাইন পোর্টাল বন্ধ, আটক ১০৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

পদ্মা সেতু নির্মাণে ভেট দেয়ার প্রথম গুজব ছড়ানো হয়েছে দুবাই থেকে। সুপরিকল্পিতভাবে দেশের পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করতে এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে স্বার্থান্বেষী একটি মহল।

বুধবার (২৪ জুলাই) সকালে পুলিশ সদর দফতরের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান আইজিপি মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। গুজব ছড়ানোয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রায় একশো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

পদ্মা সেতুতে ভেট লাগবে তাই ছেলে ধরার তৎপরতা বেড়েছে এমন গুজব ছড়িয়েছে সারা দেশে। এই গুজবে এখন পর্যন্ত গণপিটুনিতে প্রাণ হারিয়েছেন ১৪ জন নিরীহ মানুষ।

ছেলে ধরা গুজব ছড়ানোর কাজে ৬০টি ফেসবুক পেইজ, ২৫টি ইউটিউব চ্যানেল, ১০টি অনলাইন পোর্টাল কাজ করছিল। এগুলোকে চিহিৃত করে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এছাড়া দুবাইসহ বিভিন্ন দেশ থেকে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। যারা নিহত হয়েছে কেউই ছেলেধরা ছিলো না। সকালে পুলিশ সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন পুলিশের মহাপরির্দশক।

পুলিশ প্রধান জানান, গুজব ও গণপিটুনির ঘটনায় ৩১টি মামলায় এ পর্যন্ত ১০৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সুপরিকল্পিতভাবে দেশের পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করতে এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে স্বার্থান্বেষী একটি মহল।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাতে রাজধানীর পল্টন ও খামারবাড়ি এলাকায় পুলিশ বক্সের কাছে বোমা পাওয়ার ঘটনায় স্থানীয় জঙ্গী গোষ্ঠীর সম্পৃক্ততা থাকতে পারে বলেও জানান তিনি।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/এফওয়াই

Share On