সাঁতার কাটতে গিয়ে ভেসে গেলেন বন্যার পানিতে

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় বন্যার পানিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে মারা গেছেন এক যুবক। স্রোতের টানে ডুবে তিনি মারা যান। এ ছাড়া রৌমারী উপজেলায় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ভেলা থেকে পানিতে পড়ে এক তরুণ নিখোঁজ রয়েছেন। আজ মঙ্গলবার এ ঘটনা দুটি ঘটে।

মারা যাওয়া যুবকের নাম মামুন (৩০)। তিনি উপজেলার কালীগঞ্জ ইউনিয়নের কালীগঞ্জ গ্রামের এ বি এম মুসার ছেলে। এ বি এম মুসা উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার। তিনি জানান, আজ দুপুর ১২টার দিকে বন্যার পানিতে মামুন সাঁতার কাটতে গিয়ে স্রোতের টানে ডুবে যান। পরে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

পানিতে পড়ে নিখোঁজ তরুণের নাম সাইফুল ইসলাম (২৫)। তিনি উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের কর্ত্তিমারী চাকতাবাড়ী এলাকার আবদুস ছালামের ছেলে। বাঁধ ভেঙে বাড়িতে বন্যার পানি ওঠায় আজ বেলা ১১টার দিকে সাইফুল ইসলাম বাড়ি থেকে কলার ভেলায় করে মহাসড়কের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে জমিতে থাকা বিদ্যুতের তার হাত দিয়ে সরিয়ে দেওয়ার সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ভেলা থেকে পানিতে পড়ে যান। এ সময় আশপাশের লোকজন তাঁকে খুঁজে না পেয়ে রৌমারী ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাঁকে খুঁজে পায়নি ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। 
জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান (ভারপ্রাপ্ত) এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Share On