ইকোসকে বিপুল ভোটে জয় পেল বাংলাদেশ

দ্য ওয়ার্ল্ড ডেস্ক

জাতিসংঘের ‘অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ (ইকোসক)’ এর সদস্য পদের নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশ।

শুক্রবারের (১৪ জুন) ভোটাভুটিতে ১৯১ ভোটের মধ্যে ১৮১ ভোট পেয়ে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে সদস্য নির্বাচিত হয় বাংলাদেশ।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফার্নেন্দা এপ্সিনোসা গার্সেজের সভাপতিত্বে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে গোপন ভোটে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

৫৪ সদস্যের পরিষদে এই অঞ্চল থেকে বাংলাদেশ ছাড়াও সদস্য নির্বাচিত হয়েছে থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া ও চীন।

এই বিজয়ের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ২০২০-২২ মেয়াদে বহুপাক্ষিক কূটনৈতিক প্ল্যাটফর্ম এবং বৈশ্বিক আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে জাতিসংঘের সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ ফোরাম ইকোসকে তার দৃঢ় অবস্থান নিশ্চিত করল।

এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের এগিয়ে চলার স্বীকৃতি বলে মনে করছেন কূটনীতিকরা।

ফল ঘোষণার পর জাতিসংঘ সদর দপ্তরের সামনে বিশ্ব সংস্থাটিতে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি উদযাপনের প্রাক্কালে এই বিজয় বাংলাদেশের মানুষের জন্য এক অনন্য উপহার। টেকসই উত্তরণ নিশ্চিতে ইকোসকের এই সদস্যপদ লাভ আমাদেরকে আরও সামনে এগিয়ে নেবে। এছাড়া এজেন্ডা ২০৩০ বাস্তবায়নেও এই বিজয় নতুন গতি আনবে।

তিনি বলেন, ইকোসকের সদস্যপদের মাধ্যমে বাংলাদেশ ইকোসকের আওতাধীন বিভিন্ন ফোরাম, কমিশন, কমিটি, নির্বাহী বোর্ড ও আঞ্চলিক ফোরাম যেমন ইউএনএসকাপের সঙ্গে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে আরও নিবিড়ভাবে কাজ করার সুযোগ পাবে।

ইকোসকে আগামী ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে তিন বছর মেয়াদে বাংলাদেশ দায়িত্ব পালন করবে। ৩ বছর আগের কমিটিতেও বাংলাদেশ সদস্য ছিল।

২০১৮ সালে বাংলাদেশ জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের সদস্য নির্বাচিত হয়ে ২০১৯-২১ মেয়াদে দায়িত্ব পালন করছে।

দ্যওয়ার্ল্ডবিডি/কেএ

Share On