প্রবাসে বাংলাবিনোদুনিয়া
Trending

ভারতীয় জঙ্গী নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। আসিফ

দিল্লিতে মুসলিমদের উপর নরকীয় হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সরব আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক অঙ্গন ও বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা অভিনেত্রীরাও। বাংলাদেশে চলছে এর প্রতিবাদ।মুজিব বর্ষ উপলক্ষে নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না দেওয়ার জন্য উত্তাল সমগ্র বাংলাদেশ। এই নরকীয় হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সরব হয়েছে বাংলাদেশের সংগীতের যুবরাজ আসিফ আকবর। গতকাল শনিবার আসিফ আকবরের একটি ফেসবুক পোস্ট ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই পোস্টে বেশিরভাগ মন্তব্যকারী আওয়ামী লীগ সর্মথকরা। আওয়ামীপন্থীরা ও আসিফ আকবর কে সাধুবাদ যাচ্ছে ক্রান্তিকালে এই বিষয়ে একটা পোষ্ট করার জন্য। আসিফ আকবর এই পোস্টে নরেন্দ্র মোদিকে ভারতীয় জঙ্গী হিসেবে উল্লেখ করেছে যা রীতিমতো বিস্ফোরণ এর মত হয়ে উঠেছে। আসিফ আকবরের ফেইসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো।

২০২০ সালে যদি ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষনটি বঙ্গবন্ধুর বজ্রকন্ঠে ধ্বনিত হতো তাহলে নিশ্চয়ই নিম্মোক্ত দিকনির্দেশনমুলক বক্তব্যগুলো শুনতে পেতাম…

১/ সীমান্তে পাখীর মত মানুষ হত্যা বন্ধ করতে হবে।

২/ তিস্তাসহ অন্যান্য নদীগুলোর ন্যায্য পানিপ্রবাহ নিশ্চিত করতে হবে।ফেনী নদীর পানি চুরি বন্ধ করতে হবে।

৩/ বাংলাদেশে কাজ করা লক্ষ লক্ষ বৈধ অবৈধ ভারতীয় নাগরিকদের মুদ্রাপাচার এবং কর্মসংস্থান বন্ধ করে বাংলাদেশী বেকারদের চাকুরীর ব্যবস্থা করতে হবে।

৪/ তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষ ভারতকে মৌলবাদী জঙ্গী রাষ্ট্র ঘোষনা করতে হবে।

৫/ দেশ বিদেশে ছড়িয়ে পড়া চাটার দলদের অবিলম্বে প্রতিরোধ করতে হবে।

৬/ কৃষক শ্রমিকদের উৎপাদিত পন্য এবং শ্রমের ন্যায্যমূল্য দিতে হবে।দালাল ফড়িয়াদের বিরুদ্ধে গ্রামে গ্রামে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

৭/বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে দূর্নীতির কারনে জনগনের উপর অন্যায়ভাবে গ্যাস পানি বিদ্যুতের দফায় দফায় মুল্যবৃদ্ধি বন্ধ করতে হবে।

৮/ দেশে যে কোন প্রকার বৈষম্যরোধে সকল রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে জবাবদিহিতার আওতায় এনে সাধারন জনগনকে মুক্তির স্বাদ দিতে হবে।

৯/মুজিব জন্মশতবর্ষকে কলঙ্কিত করতে ভারতীয় জঙ্গী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা।

১০/ রোহিঙ্গাদের অবিলম্বে তাদের দেশে পাঠাতে মায়ানমারকে বাধ্য করতে হবে।
১১/ দেশে অবাধ সুষ্ঠ নিরপেক্ষ এবং অংশগ্রহনমুলক নির্বাচন দিতে হবে।
জয় বাংলা …

৭১ এর অগ্নিঝরা দিনগুলোর ঘটনাপ্রবাহ পর্যবেক্ষন করে এবং বঙ্গবন্ধুর আপোষহীন দেশপ্রেমের নিরিখে আমার মনে হয়েছে তিনি এসমস্ত কারনের সঙ্গে আরো অনেক অসংলগ্নতা সংযুক্ত করে গণমানুষের কথাই বলতেন …কারন স্বাধীনতা যুদ্ধের পরপর ভারতীয় সেনাবাহিনীকে ভারতে ফেরত পাঠাতে সক্ষম হয়েছিলেন, নইলে ইতিহাস হতো অন্যরকম…
এ দেশ আমাদের…আসুন প্রয়াত জাতীয় নেতাদের যথোপযুক্ত সম্মান দিতে শিখি।বিভেদ বিভাজনের রাজনীতি থেকে বের হয়ে ঐক্যবদ্ধ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলি।
অনুগ্রহ করে কেউ ভাববেন না আমি আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার ধান্দায় আছি বা ক্ষমতাসীন দলকে তেল মারছি।আমি বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ বুকে ধারন করি এবং সবার বাংলাদেশ- এই বিশ্বাস বুকে রাখি।

স্বাধীন দেশে উড়বেই জেনো স্বাধীন পতাকা…

ভালবাসা অবিরাম…

এর আগেও আসিফ আকবর দেশের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নিজের মন্তব্য করে প্রশংসিত হয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button