পাস করেছে ববি, সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছে খসরু

বিনোদুনিয়া প্রতিবেদক

উৎসব মুখর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে শেষ হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন ২০১৯-২১। এতে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খসরু। এই নির্বাচনে পাশ করেছেন নায়িকা ববি সহ মোট ১৯ জন।

শনিবার ২৭জুলাই সকাল ১০টা থেকে এফডিসিতে শুরু হয় নির্বাচন, শেষ হয় বিকেল ৪টায়। কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৯টি পদে নির্বাচন করছেন ৪১ প্রার্থী, সমিতির মোট ভোটার ১৪০ জন। এর মধ্যে ভোট প্রদান করেন ১৩০ জন ভোটার।

আজ সন্ধ্যা ৭টায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার মিরাজুল ইসলাম উকিল মাইকে ১৯জন বিজয়ী নির্বাহী সদস্যের নাম ঘোষণা করেন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ১২১ ভোটে বিজয়ী হন খোরশেদ আলম খসরু। এরপর সামসুল আলম ১১৭, ইস্পাহানী আরিফ জাহান ১১৩, কামাল মো. কিবরিয়া লিপু ১১০, মেহেদী সিদ্দিকী মনির ১০৬, হিমেল ১০৩, রশিদুল আমীন হলি ১০০, জাহিদ হোসেন ৯৮, এ জে রানা ৯৬, মোহাম্মদ হোসেন ৯৫, ইয়ামীন হক ববি ৮৬, কামাল হাসান ৮১, অপূর্ব রায় ৮০, নাদির খান ৭৯, শহিদুল আলম সাচ্চু ৭৬, ইলা জাহান নদী ৭৩, ইকবাল ৭২, ড্যানি সিডাক ৭০, আলিমুল্লাহ খোকন ৬৫ ভোট পান। এই ১৯ জনের মধ্যে ১০জনকে আবার ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করে এবারের মূল কমিটি গঠন করা হবে।

শনিবার সকাল থেকে প্রযোজক, পরিচালক, শিল্পী ও কলাকৌশলীদের মিলনমেলায় পরিণত হয় বিএফডিসি প্রাঙ্গণ। সবার মধ্যে উৎসবের আমেজ।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনকৃত এফবিসিসিআইয়ের অঙ্গসংগঠন। মামলা ও নানা জটিলতার কারণে সাত বছর ধরে বন্ধ ছিল এই সমিতির নির্বাচন। এর আগে নির্বাচন হয় ২০১১ সালের ১৮ আগস্ট।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার, অর্থাৎ নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মিরাজুল ইসলাম উকিল। সদস্য হিসেবে ছিলেন মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন (উপসচিব), মো. খাদেমুল ইসলাম (সহকারী প্রোগ্রামার)। আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে ছিলেন আবদুর রহিম খান (যুগ্ম সচিব), সদস্য আব্দুস সামাদ আল আজাদ (যুগ্ম সচিব), সৈয়দা নাহিদা হাবিবা (উপসচিব)।

২০১৬ সালে প্রযোজক নাসির হোসেনের করা রিটের কারণে নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়। পরপর তিনবার কেউ নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন না এফবিসিসিআইয়ের অধীন সংগঠনের এমন নির্বাচনী রীতির খেলাপ করা হয়েছে মর্মে নাসির হোসেন বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেছিলেন। রিটের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত নির্বাচন স্থগিত করেন।

এর আগে ২০১৪ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মামলার কারণে নির্বাচন সাময়িক বন্ধ করা হয়েছিল। এরপর সে বছর ২৯ অক্টোবর দুই দলই চলচ্চিত্রের স্বার্থে নাসিরুদ্দিন দিলুকে আহ্বায়ক করে ২২ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/ বিএইচ

Share On