সুরকার সেলিম আশরাফের পাশে প্রধানমন্ত্রী

বিনোদুনিয়া প্রতিবেদক

যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে লক্ষ মুক্তিসেনা, তোরা দে না, দে না, সে মাটি আমার অঙ্গে মাখিয়ে দে না- দেশাত্মবোধক এই অমর গানসহ বেশকিছু জনপ্রিয় গানের সুরকার সেলিম আশরাফ অনেক দিন থেকেই অসুস্থ। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে শ্বাসকষ্ট, রক্ত ও কিডনি সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করায় রাজধারীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

৫ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি ডা. মোমেনুজ্জামান ও তানিয়ার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ১২ দিনের চিকিৎসায় তার শ্বাসকষ্ট অনেকটাই দূর হয়। কিন্তু রক্ত ও কিডনি সমস্যার জটিলতা থাকা সত্ত্বেও ৩ লাখ ৩৮ হাজার টাকা বিল মিটিয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরতে হয় তাকে।

ব্যয়বহুল চিকিৎসার ভার বহন করার মতো সামর্থ্য ছিলো না তার। খুশির খবর হলো অবশেষ এই গুণী মানুষটির পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্প্রতি সেলিম আশরাফের চিকিৎসার জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। এই সুরকারকে ডেকে প্রধানমন্ত্রী নিজে হাতে তার হাতে চেক তুলে দেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সেলিম আশরাফ বলেন, ‘যখন আমার মরণঘাতী জটিল কিডনি রোগ এবং অন্ধত্বের সঙ্গে জীবন মৃত্যুর চরম যুদ্ধ চলছিল ঠিক সেই মুহূর্তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক সহযোগিতার হাত প্রসারিত হলো আমার প্রতি।

বলতে দ্বিধা নেই যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধূ শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের সব মানবিক গুণাবলি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তথা বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হৃদয়ের শিরায় উপ-শিরায় পদ্মা মেঘনা যমুনার স্রোতের মতো প্রবাহিত হচ্ছে বলেই তার মন আকাশের মত এত স্বচ্ছ উজ্জ্বল উদার ও মুক্ত।

আমার তরুণ বয়সের সেই বড় ভাই তথা বঙ্গবন্ধুবর পুত্র শহীদ শেখ কামালের সঙ্গে ১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্ট মধ্য রাতে আমাদের শেষ দেখা এবং শেষ সংলাপের কথা যখন তাকে বলছিলাম তখন তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে আমার কাঁধে হাত রেখে ঠিক বড় বোনের মতোই সান্ত্বনা দিয়েছিলেন।’

সেলিম আশরাফ আরও বলেন, ‘প্রিয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমাকে সহযোগিতার জন্য আপনাকে সামান্য ধন্যবাদ দিয়ে অন্যদের কাতারে দাঁড়াতে চাই না। অমি চাই আপনি আপনার অসাধারণ মেধা দূরদর্শিতা রাষ্ট্র পরিচালনার পারদর্শিতা কর্মদক্ষতা এবং মননশীলতা দিয়ে আপনার বিশ্ববিজয়ী পিতা বঙ্গবন্ধুর মতো দেশ ও জাতির কাঙ্ক্ষিত কল্যাণমুখী উন্নয়ন প্রতিষ্ঠার এক অনন্য প্রজ্বলিত আইকন হয়ে হাজার হাজার বছর গর্বের সঙ্গে বাংলাদেশের বুকে স্মরণীয় হয়ে থাকুন।

আমি আন্তরিকভাবে আমার হৃদয়ের অন্তস্থল থেকে আপনার দীর্ঘ-সুস্থ ও শান্তিময় জীবন মহান আল্লাহ রব্বুল আলামিনের দরবারে কামনা করছি।’

সেলিম আশরাফ জানান, খুব বেশি ভালো নেই তিনি। নিয়মিত সমরিতা হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তার। তাড়া তাড়ি যেন সুস্থ হয়ে ওঠেন, সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন এই গুণী মানুষটি।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/ বিএইচ

Share On