ইন্ডিয়ান অটোমোবাইল এসোসিয়েশনের ৭১ সদস্যের মোটরকার র‌্যালি বেনাপোলে


যশোর জেলাপ্রতিনিধিঃ দুদেশের মধ্যে মৈত্রী, সৌহার্দ্য বন্ধুত্ব , সেভ ড্রাইভ, সেভ লাইভের উদ্দেশ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীতে অংশগ্রহনের জন্যে ভারতের ইস্টার্ন ইন্ডিয়া অটোমোবাইল এসোসিয়েশন ও ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া অটোমোবাইল এসোসিয়েশনের পক্ষে ৭১ সদস্যের একটি মোটরকার র‌্যালি দুপুর ১২টায় বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দলটিকে ফুল দিয়ে অভ্যার্থনা জানানো হয়।পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সাবেক পরিবহন ও ক্রীড়ামন্ত্রী মদন মিত্রের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলটি ঢাকায় যাবে। পরে ধানমন্ডীতে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পন করবেন তারা। এসময় সেরিফপপ কলিকাতার চীফ দুলাল বোস ও অটোমোবাইল এসোসিয়েশনের কর্মকর্তা সুমন চট্টপাধ্যায় ছাড়াও ৪৭ সদস্যের প্রতিনিধিদলসহ ৭১জন সফর সঙ্গী রয়েছে। সফরে আসতে পেয়ে  খুশি সফরসঙ্গীরা। প্রতিনিধিদলটি ঢাকা হয়ে কুমিল্লা, চট্রগ্রাম, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ , রংপুর হয়ে আগামী ৭ মার্চ চ্যাংরাবান্দা  সীমান্ত দিয়ে ভারতের শিলিগুড়ি যাবে।প্রতিনিধিদলের প্রধান পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সাবেক পরিবহন ও ক্রীড়ামন্ত্রী মদন মিত্র জানান, সারা পৃথিবীতে বাংলাকে যারা সম্মানের জায়গায় নিয়ে গেছে তার নাম বাংলাদেশ। আজ সারা পৃথিবীতে ভাষা দিবসে বাংলা ভাষা স্বীকৃত। সেই বাংলাদেশের ৫০ বছর আর যিনি আন্দোলন করে এই সম্মানের জায়গায় পৌছে দিয়েছেন তিনি হলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমরা বঙ্গবন্ধুর ১০০ বছর আর বাংলাদেশের ৫০ বছর উদযাপন করতে বাংলাদেশে এসেছি পৃথিবীর মানুষকে জানাতে।তিনি বলেন, মৈত্রী, বন্ধুত্বের পাশাপাশি সড়কে চলাচলে নিরাপত্তাসহ একই ভাবে বাংলার গান গাইতে বাংলায় কথা বলতে বাংলাদেশে যাচ্ছি। স্পেনের মানুষরা যেমন স্পেনিশ ভাষায় কথা বলে, বৃটিশ বা ইংল্যান্ডের মানুষরা ইংরেজি ভাষায় কথা বলতে গর্ববোধ করে তেমনি আজ বাংলাভাষা ও বাংলাদেশের জন্য সারা পৃথিবীর মানুষ গর্ববোধ করেন।এদিকে কাগজপত্রের জটিলতায় ভারত থেকে আসা প্রতিনিধিদলটি বেনাপোল চেকপোষ্টে অবস্থান করছেন। উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশনা পেলেই মোটরক্যারর‌্যালিটি বেনাপোল ছেড়ে যাবে বলে জানান পুলিশ ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব।।

Share On