ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ছোট্ট রুশা মারা গেল বরিশালে

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ছোট্ট সোনামনি রুশা (১০) বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১০ আগস্ট) সকালে শিশুর মৃত্যু হয়। আগের রাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ঢাকা থেকে দুদিন আগে ঈদ করতে পরিবারের সাথে রুশা বরিশাল এসেছিল। এ নিয়ে শেবাচিমে চিকিৎসাধিন অবস্থায় চার ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

স্বজনরা জানান, শিশু রুশা ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার রুহুল আমিনের মেয়ে। ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকায় তাদের বসবাস। গত সপ্তাহে তা মা তেৌহিদা রাহাত সাথী জ্বরে আক্রান্ত হন। রক্ত পরীক্ষায় তা ডেঙ্গু নয় জেনে ঈদে বাড়ি যাওয়ার পরিকল্পনা করেন। এরই মাঝে রুশার জ্বর আসলে ডাক্তার দেখানো হয়। বাসাতে রেখেই তার চিকিৎসা চলছিল।

বৃহস্পতিবার রুহুল আমিন পরিবার সদস্যদের নিয়ে ঝালকাঠি রাজাপুরের বাড়িতে যান। রুশা অসুস্থ হয়ে পড়লে শুক্রবার বরিশালের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে ভর্তি অবস্থায় রক্তচাপ কমে যাওয়াসহ নানা জটিলতা চলতে থাকে। শারীরিক অবস্থার অবনতিতে শুক্রবার রাত ৯টায় রুশাকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিলো। কিন্তু এ শিশুর জীবনরক্ষার সবচেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায় সকালে।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, শিশুটি তিন দিন আগে ঢাকা থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গ্রামের বাড়ীতে এসেছিল। শারীরিক অবস্থার অবনতি শুক্রবার রাতে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তখন শিশুটির খিচুনি হচ্ছিল। আইসিইউতে রেখে তার চিকিৎসা চলছিল। সব ধরনের চেষ্টা করেও তাকে বাৎচানো যায়নি। সকালে সে মারা যায়।

পরিচালক আরো জানান, শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে শনিবার সকাল ৯টা পযর্ন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত আরো ৮৯ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ৫২ জন, নারী ২৬ জন ও শিশু রয়েছে ২০ জন। বর্তমানে ৩৪০ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/ বিএইচ

Share On