ফেসবুক লাইভে আবেগতাড়িত ডিএমপি কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক

কয়েকদিন পরেই অবসরে চলে যাচ্ছি। ৩২ বছর পুলিশে চাকরির এ পর্যায়ে এসে কর্মস্থল ছিল ডিএমপি। কষ্ট হচ্ছে প্রিয় ইউনিফর্ম আর পরতে পারব না।

রোববার (৪ জুলাই) রাতে ডিএমপির ফেসবুক পেজে জননিরাপত্তা বিধানে জনগণের প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি শীর্ষক লাইভ অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে এসে নিজের অবসরে যাওয়ার কথা বলে আবেগতাড়িত হন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

তিনি বলেন, ৩২ বছর পুলিশের চাকরি করেছি। আগামী সপ্তাহ থেকে আমি আমার প্রিয় ইউনিফর্মটা পরতে পারব না। এটা অনেক কষ্টের। আমি সম্মানিত নাগরিকদের কৃতজ্ঞতা জানাই।

বিশেষ করে আমি যেসব জেলায় অনেকদিন চাকরি করেছি। আমি তাদের যে ভালোবাসা, সমর্থন, সহযোগিতা পেয়েছি তাতে আমি অত্যন্ত আনন্দিত এবং কৃতজ্ঞ। আমি চেষ্টা করেছি জনগণের জন্য কাজ করতে। দেশের জন্য কাজ করতে।

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, একবিংশ শতাব্দীর উপযোগী উন্নত ও সমৃদ্ধ একটি পুলিশ সার্ভিস প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এটা সময়ের দাবি। কোনোভাবে ক্ষমতার দম্ভ নয়, কোনো হয়রানি নয়, বল প্রয়োগের চেষ্টা নয়—ভালো সেবা দিন। ভালোবাসা দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ান।

যারা ভিকটিম, নিপীড়িত, অবহেলিত, নির্যাতিত—তাদের পাশে দাঁড়াই। দুর্বৃত্তকে দমন করবেন কঠোর হাতে। দুর্নীতি থেকে ‍দূরে এসে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্য দিয়ে পুলিশের সম্মানকে আরো উজ্জ্বল করবেন।

এর আগে তিনি সিলেট, সুনামগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল, খুলনা বিভাগ, চট্টগ্রাম বিভাগ ও ঢাকা বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

লাইভে তার সঙ্গে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলামও ছিলেন।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/ /জিআরসি

Share On