জাতীয়

শিক্ষককে লাঞ্ছিত খবরে শিক্ষার্থীদের ভাঙচুর ও থানা ঘেরাও।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ এর সহকারী অধ্যাপক শেখ মোঃ শরিফুল আলম এর সঙ্গে ট্রাফিক পুলিশের বাক বিতণ্ডা কে কেন্দ্র করে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় বুধবার সকালে একটি অটোরিক্সার সাথে অধ্যাপক মোঃ শরিফুল আলম এর গাড়ির ধাক্কা লাগে। এ সময় রাস্তায় প্রচন্ড জ্যামের সৃষ্টি হয়।এমন সময় ট্রাফিক পুলিশ এসে ঘটনা আর মধ্যস্থতা করতে চাইলে অধ্যাপক শেখ মোঃ শরিফুল আলম এর সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে।এক পর্যায়ে ওই পুলিশ সদস্য ওই শিক্ষককে মারধর করে পুলিশ বাড়িতে নিয়ে যায়।এ খবর কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করে শহরের বিভিন্ন জায়গায় এবং বেশ কিছু অটোরিকশা ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কোতোয়ালি থানা ও দুই নাম্বার পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে এসময় দু’গ্রুপের প্রায় ১৫জন আহত হয়।জেলা প্রশাসক ও কলেজের গভর্নিং বোর্ডের সভাপতি ডঃ সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন শিক্ষককে মারধরের ঘটনা তিনি শুনেছেন এবং তাৎক্ষণিকভাবে কলেজে গিয়েছেন বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close