ক্রীড়াঙ্গন

বাংলাদেশের চাওয়া মেসি, আর্জেন্টিনা চায় নিরাপত্তা

আগামী ১৮ নভেম্বর বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা জানিয়েছে প্যারাগুয়ে। নিজেদের ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্টে দেশটির ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (পিএফএ) বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এ খবর সুনিশ্চিত করেছে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম মুন্দো আলবিসেলেস্তে। যদিও ম্যাচটি নিয়ে দেশটির ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)এখনও কোনো বিবৃতি দেয়নি।

মুন্দোর খবর অনুযায়ী,প্যারাগুয়ের বিপক্ষে খেলার জোর সম্ভাবনা আছে আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসির। লাতিন দুই ফুটবল পরাশক্তির লড়াইয়ের সম্ভাব্য ভেন্যু ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম।

তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)জানিয়েছে,ম্যাচটি আয়োজনের বিষয়টি এখনও শতভাগ চূড়ান্ত হয়নি।একই সঙ্গে জোর সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছেন তারা।

সাধারণত এ ধরনের ম্যাচ আয়োজনে নানা দেন-দরবার হয়। অংশগ্রহণকারী দল, এজেন্ট এবং আয়োজক দেশের মধ্যে দফায় দফায় এ আলোচনা হয়।বাংলাদেশেও হচ্ছে।

আগামী দু-একদিনের মধ্যে এজেন্টের সঙ্গে আরেক দফা আলোচনায় বসবে বাফুফে। এ জন্য ঢাকায় আসতে পারেন এজেন্ট প্রতিষ্ঠানের ভারতীয় প্রতিনিধিরা।

এ মহারণ নিয়ে তিন পক্ষেরই বেশ কিছু শর্ত আছে। বাংলাদেশের প্রধান শর্ত হলো- মেসির খেলা নিশ্চিত করা। আর্জেন্টিনার প্রধান কন্ডিশন নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার নিশ্চয়তা।

এ প্রসঙ্গে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, একটি এজেন্ট প্রতিষ্ঠান এ ম্যাচ আয়োজন করবে। তারা আমাদের কাছে আনুষ্ঠানিক অনুমতি ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তা চেয়েছে। আমরা সব দিয়েছি। এরই মধ্যে তাদের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছি। তাতে বলেছি, আর্জেন্টিনা একাদশে অবশ্যই মেসিকে থাকতে হবে। আসতে হবে আর্জেন্টাইন পূর্ণাঙ্গ দলকে। পাশাপাশি ম্যাচটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে করার প্রস্তাব করেছি।

এর আগে ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো ঢাকা সফর করে আর্জেন্টিনা। ওই সফরে আফ্রিকার ফুটবল পরাশক্তি নাইজেরিয়াকে ১-০ গোলে হারান মেসি-ডি মারিয়ারা। দীর্ঘ ৮ বছর পর ফের বাংলাদেশে আসছেন তারা!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close