রাজনীতি

বহিষ্কৃত ২০০ নেতাকে দলে ফেরাচ্ছে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি ‘মধ্যরাতে ভোট ডাকাতি’ হয়েছে অভিযোগ করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রত্যাখ্যানের পর বর্তমান সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। সে জন্য গত ১০ মার্চ থেকে পাঁচ ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচন বর্জন করে বিএনপি। ওই নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে অংশ নেওয়া দুই শতাধিক নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

সম্প্রতি সিদ্ধান্ত বদল করে স্থানীয় সরকারের সকল নির্বাচনে থাকার ঘোষণা দেওয়ার পর বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতাদের দলে ফেরাচ্ছে বিএনপি। যারা বহিষ্কার হয়েছিলেন তারা ক্ষমা চেয়ে আবেদন করার প্রেক্ষিতে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার হচ্ছে। গত ৯ জুলাই ৩৪ জন নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) আরও ২৩ জনের বিরুদ্ধে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেয় বিএনপি। পর্যায়ক্রমে বাকিদের ফেরানো হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির শীর্ষস্থানীয় এক নেতা।

এ বিষয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী জানান, বহিষ্কৃত অনেকেই ইতিমধ্যে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের জন্য আবেদন করেছেন। পর্যায়ক্রমে তাদের আবেদন বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। বিএনপি সূত্র জানায়, গত মার্চ থেকে মে পর্যন্ত উপজেলা নির্বাচনের প্রার্থী ও তাদের পক্ষে কাজ করায় ২০৬ জন নেতাকে বহিষ্কার করা হয়।

দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় যাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল, তাদের মধ্যে আরও ২৩ জনকে দলে ফিরিয়েছে বিএনপি।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইতোপূর্বে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুষ্পষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে নিম্নবর্ণিত নেতৃবৃন্দকে বিএনপির প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

যাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে, তারা হলেন- মোছাম্মাৎ সুরাইয়া জেরিন রনি, সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল, বগুড়া জেলা শাখা; মোছাম্মাৎ কহিনুর আক্তার, সাবেক পরিকল্পনা বিষয়ক সহ-সম্পাদক, জেলা বিএনপি বগুড়া; মো. এহসানুল বাশার জুয়েল, বিএনপি নেতা- গাবতলী উপজেলা শাখা, বগুড়া; মোছাম্মাৎ সহমিনা আকতার বানু, সাবেক সদস্য- গাবতলী উপজেলা বিএনপি, বগুড়া; মোছাম্মাৎ মমতা আরজু কবিতা, সাবেক সভাপতি- কাহালু উপজেলা মহিলা দল, বগুড়া; মোছাম্মাৎ জুলেখা বেগম, সাবেক যুগ্ম- শাহজাহানপুর উপজেলা বিএনপি, বগুড়া;

মহিদুল ইসলাম গফুর, সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক- সদর থানা বিএনপি, বগুড়া, মোছাম্মাৎ গোলাপী বেগম, সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক- সারিয়াকান্দি উপজেলা বিএনপি, বগুড়া; মোছাম্মাৎ রঞ্জনা খান, সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক- সোনাতলা উপজেলা বিএনপি, বগুড়া; জিয়াউল হক রিপন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক- সোনাতলা উপজেলা বিএনপি, বগুড়া; মো. জাহাঙ্গির আলম, সাবেক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক, জেলা বিএনপি, বগুড়া; এ্যাড. মোছা. রহিমা খাতুন মেরী, মহিলা দল নেত্রী, শাহজাহানপুর উপজেলা, বগুড়া; শিমুল সরকার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক- ৬ নং ওয়ার্ড বিএনপি, গাবতলী উপজেলা, বগুড়া;

খালেদা আক্তার (নয়নতারা), সাবেক সদস্য- সোনাতলা উপজেলা মহিলা দল, বগুড়া; মো. আলেকজান্ডার, সাবেক সভাপতি- ধুনট পৌর বিএনপি, বগুড়া; আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল, সাবেক সভাপতি- ধুনট পৌর বিএনপি, বগুড়া; প্রভাষক মো. শাহাবুদ্দিন, সাবেক সভাপতি- কাহালু থানা কৃষক দল, বগুড়া; মো. কায়েম উদ্দিন, সাবেক সভাপতি- পৌর বিএনপি, চারঘাট-রাজশাহী; মো. বাবর আলী বিশ্বাস, সাবেক সদস্য- ভোলাহাট উপজেলা বিএনপি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ;

মোছাম্মাৎ রেশমাতুল আরজ রেখা, মহিলা দল নেত্রী- ভোলাহাট উপজেলা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ; এ্যাডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন শাহীন, সাবেক সহ-সভাপতি, হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি; সাহিদা আক্তার সেপু, সাবেক সভাপতি বোয়ালখালী উপজেলা মহিলা দল, চট্রগ্রাম; আসাদুজ্জামান জামান এবং সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, নড়াইল জেলা বিএনপি।

দ্য ওয়ার্ল্ডবিডি/ঢাকা/এফওয়াই

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close